পরিচয় গোপন রেখে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাজুর ত্রাণ সহায়তা

পরিচয় গোপন রেখে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাজুর ত্রাণ সহায়তা

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনার প্রকোপে থেমে গেছে জনজীবন। যার ফলে সরকারের ঘোষিত চলমান ছুটিতে কর্মহীন হয়ে পড়া দিনমজুর, শ্রমিক , দারিদ্র্য পরিবারের পাশে ত্রাণ সামগ্রীসহ আর্থিকভাবে সহায়তা দিতে পাশে দাড়িয়েছেন অনেকে। কিন্তুু লোকলজ্জায় বেকায়দায় আছেন নিম্ন মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্তরাও ।

এবার সেসব লোকদের ভিন্ন আঙ্গিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন এক যুবলীগ নেতা। সাবেক চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ নেতা ও আগামীর চট্টগ্রাম চন্দনাইশ পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী এবং বর্তমান চন্দনাইশ পৌরসভায় ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন শাহী ইমরান রাজু। করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া অনেক কর্মজীবি লোকজন কাজে যোগ দিতে পারছেন না যার ফলে এক প্রকার আয় রোজগারের পথ বন্ধ। ব্যক্তিগত ও কিছু শুভাকাঙ্ক্ষী বড় ভাইদের তহবিল থেকে এসব লোকদের সাধ্য অনুযায়ী বিভিন্ন ভাবে খাদ্য সামগ্রী দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এর পাশাপাশি এরকম পরিস্থিতিতে মানবিক উদ্যোগ নিয়ে লজ্জায় হাত বাড়াতে পারেন না এমন নিম্ন মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্তদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। শাহী ইমরান রাজু নতুন সংবাদ কে জানান, অনেকে কষ্টে আছে কিন্ত লোকলজ্জায় কাউকে কিছু বলতে পারছেন না। আমি তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি প্রতিনিয়ত।

এছাড়া অনেকে ফেইসবুক মেসেঞ্জারে মেসেজ পাঠিয়েছে। তাদের ব্যক্তি পরিচয় গোপন রেখে চাল,ডাল,আলু,পেঁয়াজ,তেল,সহ বিভিন্ন ইফতার সামগ্রী নিজে গিয়ে দিয়ে এসেছি। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে অসহায় মানুষদের জন্য প্রথম থেকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। তবে, ব্যক্তি পরিচয় গোপন রেখে ভিন্ন আঙ্গিকে খাদ্য সামগ্রী পৌছিয়ে দিচ্ছেন কেন? জানতে চাইলে, প্রতিবেদকের সাথে আলাপচারিতায় খোলামেলাভাবে জানালেন তার উত্তর। ছোটবেলা থেকে বিভিন্ন উন্নয়ন ও সেবামূলক কাজে অংশগ্রহণ করে আসছি, মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে পারাটা সৌভাগ্যের।

এছাড়া, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাথে ২০০৬ সাল থেকে যুক্ত ছিলাম। তখন থেকে ছাত্র সংগঠনের নেতৃত্ব দেয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন আন্দোলনসহ চট্টগ্রাম শহরের নানা সমস্যা নিয়ে সবসময় সোচ্চার ছিলাম। তবে সামনের দিনগুলোতে আরো ব্যপকভাবে মানুষের কল্যানে কাজ করে যেতে চান বলেও জানান তিনি। শাহী ইমরান রাজু বলেন,বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সাথে যুক্ত থেকে কাজ করে যাচ্ছি, এর পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথেও যুক্ত। সাধারণ মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থাকতে চাই।

আগামীতে চন্দনাইশের ৫নং ওয়ার্ড পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচনে নির্বাচিত হলে আমি আমার ওয়ার্ডের মানুষের জন্য দিন রাত নিরলসভাবে কাজ করে যাবো। এসময় চলমান করোনা সংকটে সব ধরনের মত পার্থক্য ভুলে গিয়ে নিজ,নিজ জায়গা থেকে সকলকে এগিয়ে আাসার আহ্বান জানান তিনি।

আরো খবর